নিরবের বিপরীতে বাংলাদেশের সিনেমায় রাইমা সেন

প্রকাশিত: ১০:১৯ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০২০

সুচিত্রা সেন বাংলাদেশের মেয়ে। জন্মেছিলেন পাবনায়। সেখানেই কেটেছে শৈশবের অনেকটা সময়। এরপর পাড়ি জমান কলকাতায়। সেখানে বেড়ে ওঠা ও নায়িকা হিসেবে প্রতিষ্ঠা পাওয়া। বাংলাদেশে কখনো আসেননি। এদেশের সিনেমাতেও কখনো দেখা যায়নি তাকে।

তবে তার মেয়ে মুনমুন সেনের দুই মেয়ে রাইমা সেন ও রিয়া সেন। বাংলাদেশে নায়িকা হয়েছেন রিয়া সেন চিত্রনায়ক রিয়াজের বিপরীতে ‘মনে পড়ে তোমাকে’ সিনেমায়। এবার বাংলাদেশি সিনেমায় অভিনয়ের কথা শোনা যাচ্ছে সুচিত্রার বড় নাতনি রাইমা সেনের।

ব্রিটিশবিরোধী আন্দোলনের অন্যতম বীর সৈনিক তিতুমীরকে নিয়ে ছবি নির্মাণ করতে যাচ্ছেন পরিচালক ডায়েল রহমান। সিনেমাটিতে তিতুমীরের চরিত্রে দেখা যাবে জনপ্রিয় চিত্রনায়ক নিরবকে। গেল ২ ফেব্রুয়ারী ‘তিতুমীর’ ছবির জন্য চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন বলে জানান করেছেন নিরব। এখানে নিরবের বিপরীতে রাইমা অভিনয় করবেন বলে জানিয়েছেন পরিচালক। এটিই এখন ‘টক অব দ্য ঢালিউড’।

তবে রাইমা সেনের সঙ্গে যোগাযোগ করে এ ব্যাপারে কোনো সাড়া মেলেনি। ডায়েল রহমান জানান, ‘রাইমার সঙ্গে আমার কথা চূড়ান্ত হয়নি। আমার পরিকল্পনা তাকে নিয়ে ছবিটি করার। সেভাবেই এগুচ্ছি। দেখা যাক কী হয়।’

এই বিষয়ে চিত্রনায়ক নিরব বলেন, ‘ছবির নায়িকা কে হবে এই বিষয়ে এখনো চূড়ান্তভাবে কিছু জানতে পারিনি। তবে রাইমা সেন যদি ছবিটিতে অভিনয় করেন বেশ ভালোই হবে। অনেক দক্ষ একজন অভিনেত্রী তিনি। তাকে নায়িকা হিসেবে পেলে ভালোই লাগবে।’

‘তিতুমীর’ ছবিটির চিত্রনাট্য করছেন আবদুল্লাহ জহির বাবু। ছবিটি শিশির কথাচিত্রের প্রথম প্রযোজনায় নির্মিত হবে। জানাগেছে, চিত্রনাট্যের কাজ শেষের পথে সিনেমার শুটিং শুরু হবে আগামী এপ্রিল মাস থেকে।

উল্লেখ্য, ঐতিহাসিক ব্যক্তিত্ব তিতুমীর বাংলার প্রজাকুলের ওপর স্থানীয় জমিদার, ইউরোপীয় নীলকরদের অত্যাচার প্রতিরোধ এবং ব্রিটিশ শাসন থেকে বাংলাকে মুক্ত করার লক্ষ্যে আন্দোলনে নেমেছিলেন। যার পুরো নাম সৈয়দ মীর নিসার আলী। প্রাথমিক পর্যায়ে তার আন্দোলনের লক্ষ্য ছিল সামাজিক ও ধর্মীয় সংস্কার। ব্রিটিশ সৈন্যদের সাথে যুদ্ধরত অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন বীর এই যোদ্ধা।